মিসির আলি পরিচিতি ও মিসির আলি সংক্রান্ত বইসমূহ

মিসির আলি পরিচিতি ও মিসির আলি সংক্রান্ত বইসমূহ

মিসির আলি চরিত্র চেনে না বা মিসির আলি চরিত্র সম্পর্কে জানে না এমন পারসোন বাংলা সাহিত্যের পাঠক সমাজে আছে বলে আমার মনে হয় না। মিসির আলি কেন্দ্রিক উপন্যাসের কাহিনীগ‌ুলোকে আপনি ঠিক গোয়েন্দা কাহিনী বলতে পারবেন না, কিংবা ‘ক্রাইম ফিকশন’ অথবা ‘থ্রিলার’-এর মতো খুনি-পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়ার কোনো স্টরিও নয় মিসির আলি সিরিজের উপন্যাসগুলো। বরং উপন্যাসের গল্পগুলো আপনার কাছে সথেষ্ট মনস্তাত্ত্বিক, বিজ্ঞাননির্ভর এবং প্রচন্ড যুক্তিনির্ভর কাহিনীর বুনটে বাঁধা গল্প বলে মনে হবে। মিসির আলির কাছে অনেকে অনেক প্রকার সমস্যা নিয়ে আসে। তিনি সেই সমস্যাগুলোর সমাধান করেন পিউর লজিক ফলো করে।

ছবি কৃতজ্ঞতাঃ সুনবিরাজ তানজীব, আর্টস্টেশন

মিসির আলি পরিচিতি বা মিসির আলির পরিচয়

মিসির আলি পেশায় একজন শিক্ষক। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের একজন সহযোগী অধ্যাপক। মিসির আলি সম্পর্কে আর একটু বিস্তারিত জানার জন্য নিচের ছকটি দেখে নিতে পারেন।

ক্রমিক নং বিষয় বিস্তারিত
০১ নাম মিসির আলি
০২ পেশা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন খন্ডকালীন শিক্ষক
০৩ বৈবাহিক অবস্থা নিষঃঙ্গ (নিলু নামে একটি চরিত্র আছে যে কিনা মারাত্মক ভাবে মিসির আলির প্রতি অনুরাগি)
০৪ স্রষ্টা হুমায়ুন আহমেদ
০৫ লিঙ্গ পুরুষ
০৬ জাতীয়তা বাংলাদেশী

মিসির আলির উল্লেখযোগ্য উক্তিসমূহ

মিসির আলি যেহেতু একজন লজিক্যাল পারসোন, তার কিছু উল্লেখযোগ্য এবং জনপ্রিয় উক্তি রয়েছে। উক্তি গুলো দেখে নিতে পারেন, হয়ত আপনার ভাল লাগবে।

“হে পুন্নাগ,তোমার সুগন্ধ ত্রিভুবন খ্যাত।তোমার যশ ও খ্যাতি দিগাঙ্গনারা নিজ অঙ্গনে ছড়াইয়া রাখে।তবু তোমার একটি অখ্যাতি। তোমার শরীরের কোটরে বাস করে বিষধর সর্প।”

“মিসির আলি এমন একজন মানুষ, যিনি দেখার চেষ্টা করেন চোখ বন্ধ করে। যে পৃথিবীতে চোখ খুলেই কেউ দেখে না, সেখানে চোখ বন্ধ করে দেখার এক আশ্চর্য ফলবতী চেষ্টা।”

“মানুষ দুটো সময়ে খেলতে পছন্দ করে। শৈশবে এবং বৃদ্ধ বয়সে। শৈশবে খেলার সঙ্গী জুটে যায়, বৃদ্ধ বয়সে কাউকে পাওয়া যায় না। তখন খেলতে হয় নিজের সঙ্গে।”

“প্রেমে পড়া অতি তুচ্ছ এবং হাস্যকর একটা জৈবিক বিষয়। এখানে আধ্যাত্মিকতার কিছু নেই।”

“গভীর প্রেম মানুষকে পুতুল বানিয়ে দেয়। প্রেমিক প্রেমিকার হাতের পুতুল হয় কিংবা প্রেমিকা প্রেমিকের পুতুল। দু’জন এক সঙ্গে কখনো পুতুল হয় না।”

মিসির আলি সংক্রান্ত বইমূহ

মিসির আলি কে নিয়ে সর্বমোট ২০ টি বই প্রকাশিত হয়েছে। বইগুলোর নাম এবং প্রকাশকাল নিচের ছকে দেওয়া হলো।

ক্রমিক নং নাম প্রকাশকাল পৃষ্ঠা সংখ্যা
০১ দেবী জুন ১৯৮৫ ৯৪
০২ নিশীথিনী ১৯৮৮ ১০১
০৩ নিষাদ ১৯৮৯ ৮০
০৪ অন্যভুবন ১৯৮৭ ৫৮
০৫ বৃহন্নলা আগস্ট, ১৯৮৯ ৪৮
০৬ ভয় মে, ১৯৯১ ৮০
০৭ বিপদ ১৯৯১ ৬২
০৮ অনীশ মে, ১৯৯২ ৬০
০৯ মিসির আলি অমনিবাস-১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৩ ৫১৪
১০ মিসির আলির আমীমাংসিত রহস্য ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৬ ১০৮
১১ হিমুর দ্বিতীয় প্রহর (হিমু চরিত্রের সাথে মিসির আলির সাক্ষাৎ) ১৯৯৭ ৯৬
১২ আমিই মিসির আলি ফেব্রুয়ারি, ২০০০ ৯৫
১৩ বাঘবন্দী মিসির আলি জুন, ২০০১ ৮৮
১৪ মিসির আলী অমনিবাস-২ ফেব্রুয়ারি, ২০০৬ ৪৩০
১৫ হরতন ইশকাপন ২০০৮ ৮৪
১৬ মিসির আলির চশমা ফেব্রুয়ারি, ২০০৮ ৮০
১৭ কহেন কবি কালিদাস ২০০৯ ৮০
১৮ মিসির আলি আপনি কোথায়? ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ ৯৬
১৯ মিসির আলি আনসল্ভড জুলাই, ২০০৯ ৯৬
২০ যখন নামিবে আঁধার ২০১২ ৭২

কারো কারো মতে হুমায়ুন আহমেদ নিজেকেই মিসির আলি রূপে উপন্যাসে প্রাকাশ করেছেন। কিন্তু লেখক এই কথা অস্বীকার করেছেন। মিসির আলি সম্পর্কে হুমায়ুন আহমেদকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন,

“না, মিসির আলিকে আমি দেখিনি। অনেকে মনে করেন লেখক নিজেই হয়তো মিসির আলি। তাঁদেরকে বিনীতভাবে জানাচ্ছি- আমি মিসির আলি নই। আমি যুক্তির প্রাসাদ তৈরি করতে পারি না এবং আমি কখনও মিসির আলির মতো মনে করিনা প্রকৃতিতে কোনো রহস্য নেই। আমার কাছে সব সময় প্রকৃতিকে অসীম রহস্যময় বলে মনে হয়।”

About the Author: AllBoi Staff

You May Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।