Meyetir Naam Narina PDF | মেয়েটির নাম নারীনা PDF - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

Meyetir Naam Narina PDF | মেয়েটির নাম নারীনা PDF – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

Meyetir Naam Narina PDF বাংলা বই। মেয়েটির নাম নারীনা PDF মুহম্মদ জাফর ইকবালএর লেখা একটি কিশোর সাহিত্য বই। এটি মুহম্মদ জাফর ইকবালের লেখা একটি কিশোর সাহিত্য বই এবং বইটিতে মোট ১৪০ পাতা রয়েছে। মেয়েটির নাম নারীনা বইটির PDF আমরা সংগ্রহ করেছি যার সাইজ মাত্র ০৮ এমবি। বইটি র্ল পাবলিকেশন্স প্রথম ২০০৯ সালে প্রকাশ করে। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা বইটির পিডিএফ ফাইল লিংক নিচে শেয়ার করলাম যা থেকে আপনারা বইটি পড়তে এবং ডাউনলোড করতে পারবেন।

মেয়েটির নাম নারীনা।
একদিন খুব ভোরে নারীনা বের হয়েছে
বনে যাওয়ার জন্য।
বনে তার সঙ্গে দেখা হলো এক অদ্ভুত ছেলের।
সেই ছেলের নাম
জংলে জালা ডংলে ডালা টুগরি টুরাং!
বড় মামা এদের গল্প বলছেন মিতুলকে।
গল্পে আছে আরও অনেক চরিত্র। টিটিং, ভুটু, ছুটকি, টিকটিকালি …।
আর আছে ভয়ঙ্কর একজন
সেনাপতি গুরগিল কু গুরগান!
শুনতে শুনতে, পড়তে পড়তে রূপকথা মনে হতেই পারে কিন্তু মেয়েটির নাম নারীনা রূপকথা নয়, রূপকথার আদলে এক অন্ধকার সময়ের কাহিনী।

ডাউনলোড  /  অনলাইনে পড়ুন

মুহম্মদ জাফর ইকবাল হলেন একজন বাংলাদেশী কথাসাহিত্য ও বিজ্ঞান কল্পকাহিনী লেখক, কলাম লেখক, পদার্থবিদ, শিক্ষাবিদ ও আন্দোলনকর্মী। জাফর ইকবালের জন্ম, ১৯৫২ সালের ২৩ ডিসেম্বর তারিখে সিলেটে। তার পিতা মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ফয়জুর রহমান আহমদ এবং মা আয়েশা আখতার খাতুন। জাফর ইকবাল ১৯৬৮ সালে বগুড়া জিলা স্কুল থেকে এসএসসি এবং ১৯৭০ সালে ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। জাফর ইকবাল বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই লেখালেখি করেন। তার প্রথম বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীমূলক গল্প কপোট্রনিক ভালোবাসা সাপ্তাহিক বিচিত্রায় প্রকাশিত হয়েছিল। তার লেখা কিছু উপন্যাস চলচ্চিত্রে রূপায়িত হয়েছে। তিনি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের একজন অধ্যাপক। এবং ২০১৮ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত একই বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ কৌশল বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন। ২০১৮ সালের ৩ মার্চে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) উৎসবের রোবটিক প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ইকবালের মাথায় হামলা চালায়।

You May Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।