Onuron Golok PDF | অনুরন গোলক PDF - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

Onuron Golok PDF | অনুরন গোলক PDF – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

Onuron Golok PDF বাংলা বই। অনুরন গোলক PDF মুহম্মদ জাফর ইকবালএর লেখা একটি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর বই। এটি মুহম্মদ জাফর ইকবালের লেখা একটি জনপ্রিয় উপন্যাস বই এবং বইটিতে মোট ৯৬ পাতা রয়েছে। অনুরন গোলক বইটির PDF আমরা সংগ্রহ করেছি যার সাইজ মাত্র ১২ এমবি। বইটি বিদ্যাপ্রকাশ প্রথম ২০০৮ সালে প্রকাশ করে। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা বইটির পিডিএফ ফাইল লিংক নিচে শেয়ার করলাম যা থেকে আপনারা বইটি পড়তে এবং ডাউনলোড করতে পারবেন।

মোট ১০টি গল্পনিয়ে বইটি সংকলন করা হয়েছে।

১. ত্রাতিনার স্বগ্রহে প্রত্যাবর্তন
২. পরাবাস্তবতার জগতে
৩. ওরা
৪. বিকল্প
৫. টানেল
৬. লিফটের যাত্রী
৭. লিওনের একঘেয়ে জীবন
৮. ভাবনা
৯. জগলুল সিংগুলারিটি
১০. অনুরন গোলক

ডাউনলোড  /  অনলাইনে পড়ুন

বইটির প্রথমেই জাফর স্যার রেখেছেন ত্রাতিনার স্বগ্রহে প্রত্যাবর্তন ।গল্পটির নাম শুনেই এর বৈচিত্রতা অনুমেয় ।তাই এটি সম্পর্কে আমি কিছু না বলি বরং দ্বিতীয় গল্পটি সম্পর্কে বলি ।গল্পটিতে পাগলাটে এক বিজ্ঞানী শওকত তৈরি করে এক অবিশ্বাস্য সফটওয়ার আর ভারী চশমা । কি খুব সাধারন একটা ব্যাপার মনে হচ্ছে ?তবে মোটেও সাধারণ নয় ।কারণ ঐ ভারী চশমাটি পড়ে সফটওয়ার চালু করা হলে হারিয়ে যাবেন এক অজানা জগতে, পরাবাস্তবতার সেই জগতে ।তারপরের গল্পটি ‘ওরা ‘ ।ওরা কি করে সেটা আপনারাই দেখে নেন ।ঠিক আছে ? এরপর আছে ‘বিকল্প’ ।মানুষের বিকল্প রোবট হলে কি পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় তা নিয়েই সাজানো হয়েছে গল্পটি । ‘টানেল’ গল্পে বিজ্ঞানী রিশ তৈরি করে এক টানেল ।অনেক শক্তির যোগান দেওয়া হয় সেখানে । আর দুর্ভাগ্য দেখুন সেই টানল দিয়ে নিজের অনিচ্ছায় পৌঁছে যায় ভবিষ্যতে, হারায় তার প্রেয়সীকে । ‘রোবট’ কত দ্রুত বিশ্লেষণ করতে পারে হয়তো জানেন ?কিন্তু যদি সেটা হয় চতুর্থ স্তরের রোবট তাহলে সে কিভাবে বিশ্লেষণ করে সেটা দেখে নিন ‘ভাবনা ‘য় । জগলুল সিংগুলারিটিতে রয়েছে জগলুল হটকারিতা ।সে অসম্ভব রকমের মেধাবী ছাত্র আলাউদ্দীনের আবিষ্কার নিজের নামে চালিয়ে দেয় ।তারপর তো সে নিজেই পড়ে যায় সেই আবিষ্কারের ফাঁদে মানে জগলুল সিংগুলারিটিতে । সবশেষে রয়েছে সেই গল্প যার নামে নামকরণ এই বইটি ।নিশ্চয়ই ধরে ফেলেছেন ‘অনুরন গোলক’ ।মানুষের শরীরে অনুরন গোলক ঢুকলে কি হয় আর তারপর যখন তা খোলা হবে তখন ? আপনারাই দেখে নেন । সবশেষে একটা কথা বলি, আমার মনে হয় না জাফর স্যারের বইয়ের প্রসংশার প্রয়োজন আছে ।কারণ তার বইগুলো প্রসংশার উর্ধ্বে ।তবে কিছু কিছু বই হয়তো ততটা ভালো নাও লাগতে পারে ।তাই আপনাদের একটু অভয় দেই যে এই বইটি ঐ কিছু কিছু বইয়ের মাঝে নেই ,অন্তত আমার কাছে মনে হয়নি ।

মুহম্মদ জাফর ইকবাল হলেন একজন বাংলাদেশী কথাসাহিত্য ও বিজ্ঞান কল্পকাহিনী লেখক, কলাম লেখক, পদার্থবিদ, শিক্ষাবিদ ও আন্দোলনকর্মী। জাফর ইকবালের জন্ম, ১৯৫২ সালের ২৩ ডিসেম্বর তারিখে সিলেটে। তার পিতা মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ফয়জুর রহমান আহমদ এবং মা আয়েশা আখতার খাতুন। জাফর ইকবাল ১৯৬৮ সালে বগুড়া জিলা স্কুল থেকে এসএসসি এবং ১৯৭০ সালে ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। জাফর ইকবাল বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই লেখালেখি করেন। তার প্রথম বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীমূলক গল্প কপোট্রনিক ভালোবাসা সাপ্তাহিক বিচিত্রায় প্রকাশিত হয়েছিল। তার লেখা কিছু উপন্যাস চলচ্চিত্রে রূপায়িত হয়েছে। তিনি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের একজন অধ্যাপক। এবং ২০১৮ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত একই বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ কৌশল বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন। ২০১৮ সালের ৩ মার্চে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) উৎসবের রোবটিক প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ইকবালের মাথায় হামলা চালায়।

You May Also Like

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।